২৫, অক্টোবর, ২০২০, রোববার

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মদিনে নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরন

জসিম উদ্দিন জয়নাল,খাগড়াছড়ি: বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম ও স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশ পুনর্গঠনে বিশেষ অবদান রাখা বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেছেন।

শনিবার (৮ আগষ্ট) দুপুরের দিকে মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে মাটিরাঙা উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মাটিরাঙা উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

মাটিরাঙা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল হক। মাটিরাঙা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. আরিফুল হক অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানে পাঁচ জন প্রশিক্ষিত নারীর হাতে সেলাই মেশিন তুলে দেন মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম ও
মাটিরাঙা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ।

মহীয়সী নারী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব নীরবে-নিভৃতে বাঙালি জাতির জন্য কাজ করে গেছেন মন্তব্য করে মাটিরাঙা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ বলেছেন, তার অনুপ্রেরণা ও সহযোগিতা না থাকলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পক্ষে স্বাধীনতা অর্জন সম্ভব হতো না। বঙ্গবন্ধুকে বিভিন্নভাবে পরামর্শ দিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রামকে এগিয়ে নিয়েছেন।

মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো:রফিকুল ইসলাম প্রধান অতিথির বক্তব্যয়ে বলেন,বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব শুধুমাত্র জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন তাঁর রাজনৈতিক সহযোদ্ধা। বঙ্গমাতা বাঙালি জাতিকে পরিবারের মতো আগলে রাখতেন তিনি আরো বলেন, শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন অসীম সাহসী একজন নারী।তিনি আরো বলেন, ১৯৩০ সালের আজকের দিনে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে তিনি জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে তিনি জাতির পিতার হত্যাকারীদের হাতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে নির্মমভাবে নিহত হন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা ও সেলাই মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যয়ে মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো:রফিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন।

সর্বশেষ নিউজ