২৫, অক্টোবর, ২০২০, রোববার

ব্যাংকে চুরি করতে গিয়ে ভল্ট খোলার কাটারে কাটল চোরের গলা

চুরি করার জন্য বেসরকারি ব্যাংকে ঢুকেছিল এক চোর। কাটার দিয়ে ব্যাংকের ভল্টও সফলভাবে কেটে ফেলেছিলেন তিনি। কিন্তু অসাবধানতায় সেই কাটারেই কেটে যায় তার গলা। শনিবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে ভারতের গুজরাতের বডোদরার একটি বেসরকারি ব্যাংকের ব্রাঞ্চে।

বডোদরার হারনি রোডের একটি মার্কেট কমপ্লেক্সে রয়েছে উজ্জীবন স্মল ফিন্যান্স ব্যাংকের ব্রাঞ্চ। সেখানেই শনিবার রাত ১টা নাগাদ ঢুকেছিলেন ওই চোর।

পুলিশ জানিয়েছে, ইলেকট্রিক কাটার দিয়ে দরজা কেটে ব্যাংকে ঢোকেন চোর। তারপর সফলভাবে ব্যাংকের ভল্ট কেটে চুরি শুরু করেছিলেন। সেই সময়ই কাটারের সুইচ অন হয়ে যায় ও তাতেই চোরের গলা কাটা পড়ে।

সেদিন রাতে বডোদরার ব্রাঞ্চে চোর ঢোকার ঘটনা সিসিটিভিভে ধরা পড়েছিল। চেন্নাইয়ে থাকা নজরদারি দল তা দেখেত পেয়ে খবর দিয়েছিল ওই ব্রাঞ্চের ম্যানেজার প্রশান্ত শর্মাকে। তিনি ব্রাঞ্চে এসে গলা কাটা অবস্থায় চোরকে পড়ে থাকতে দেখেন। তারপর পুলিশকে খবর দেন তিনি।

এ ব্যাপারে ওয়ারাসিয়া থানার ইনস্পেক্টপ এস এস আনন্দ বলেন, ‘ভল্টের আশপাশের জায়গা খুব সরু। সেখানে একজনের ঠিকমতো দাঁড়ানোর জায়গা নেই। সেখানে চুরি করার সময় অন্ধকারে হাত লেগে কাটারের সুইচ অন হয়ে গিয়েছিল। যার জেরেই মৃত্যু হয় ওই চোরের।’

দুর্ঘটনাজনিত এই মৃত্যু নিয়ে মামলা করেছে পুলিশ। চুরির চেষ্টার অভিযোগে পৃথক একটি মামলাও করা হয়েছে। মৃত চোরের থেকে কিছু নথি উদ্ধার হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই অফিসার। তবে পুলিশের অনুমান, ব্যাংকে চুরি করতে একাই এসেছিল ওই চোর।

সূত্র : আনন্দবাজার

সর্বশেষ নিউজ