২৬, অক্টোবর, ২০২০, সোমবার

মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

জসিম উদ্দিন জয়নাল,খাগড়াছড়ি : মাটিরাঙ্গার বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষন কান্তি দাশ কর্মকালীন নিজের বিভিন্ন কর্মকান্ডের স্মৃতিচারণ করে বলেন, অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালনের চেষ্ঠা করেছি। কতটুকু দিতে পেরেছি তার বিচার করার দায়িত্ব মাটিরাঙাবাসীর। বিভিন্ন সময়ে দায়িত্ব পালন করা ইউএনদের প্রশংসা করে মাটিরাঙার বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, মাটিরাঙায় যোগদান করে আমি তৈরী করা প্লাট পেয়েছি। যা আমার কাজকে সহজ করে দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগষ্ট) দুপুরের দিকে মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে বদলীজনিত বিদায় সংবর্ধা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন, মাটিরাঙা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ।

মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সহকারী কমিসনার (ভুমি) মিজ ফারজানা আক্তার ববি, মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. আনিছুজ্জামান ডালিম, মিসেস হাসিনা বেগম, মাটিরাঙা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামসুদ্দিন ভুইয়া, মাটিরাঙা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা, মাটিরাঙা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এমএম জাহাঙীর আলম ও মাটিরাঙা বেলছড়ি ইউপি সচিব তপন ত্রিপুরা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
মাটিরাঙা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শেখ আশরাফ উদ্দিনের সঞ্চালনায় মাটিরাঙা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. মনিরুজ্জামান অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন।

মাটিরাঙায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষন সম্বলিত ব্যাতিক্রমী ফ্রিডম স্কোয়ার স্থাপন ও শুদ্ধাচার পুরষ্কারে ভুষিত হওয়াসহ নানা অর্জনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে সকলের সহযোগিতা ছিল বলেই এসব অর্জন সম্ভব হয়েছে। ই-ফাইলিং সারাদেশে ২য় স্থান লাভ করার কথাও উল্লেখ করেন তিনি।

দায়িত্ব পালনকালে সাংবাদিকদের অকুন্ঠ সমর্থন পাওয়ার কথা উল্লেখ করে বিভীষণ কান্তি দাশ মাটিরাঙায় কর্মরত সাংবাদিকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। সাংবাদিকরাও সমভাবে এখানকার উন্নয়নের অংশীদার বলেও মন্তব্য করেন তিনি। সাংবাদিকদের সহযোগীতার কথা আমার সবসময় মনে থাকবে।

স্মৃতিচারন করতে গিয়ে মাটিরাঙা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এমএম জাহাঙীর আলম বলেন, একজন ইউএনও কতোটা মানবিক ও দায়িত্ব পরায়ন হতে পারে তাঁর এক অনন্য দৃষ্টান্ত বিভীষণ কান্তি দাশ। করোনাকালে তিনি ছিলেন মানবতার ফেরীওয়ালা। করোনাকালে তিনি নিজের স্ত্রী-সন্তানকে ঘরে রেখে রাত-বিরাতে ঘুরে বেরিয়েছেন করোনার ছোবলে ক্ষত-বিক্ষত মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রী তুলে দেয়া সহ করোনাকালে কর্মহীন মানুষদের
প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি।

মাটিরাঙার বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশকে চৌকস অফিসার মন্তব্য করে মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, আজ তাকে বিদায় দিলেও নিজের মানবিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে মাটিরাঙার বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার মানুষের হৃদয়ে থাকবেন।

অশ্রুসিক্ত ও বেদনাহত বিদায় অনুষ্ঠানে মাটিরাঙা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাজকুমার শীল, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ওবায়দুর রহমান, মাটিরাঙা উপজেলা রিসোর্স ইনস্ট্রাক্টর আসগর হোসেন, বড়নাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর, গোমতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফারুক হোসেন লিটন, আমতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল গনি, মাটিরাঙা মডেল সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. রফিকুল ইসলাম, মাটিরাঙা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মালেক ছাড়াও উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধান, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক-সাংবাদিক, হেডম্যান-কার্বারী ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে দুই বছর সাত মাস মাটিরাঙায় কর্মজীবন কাটিয়ে কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে বদলী হয়েছেন বিভীষণ কান্তি দাশ।

অনুষ্ঠানে মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, ইউপি সচিব ফোরাম, ইউসিসিএ চেয়ারম্যান, উদ্যোক্তা ফোরাম ও সামাজিক সংগঠন বন্ধু জুনিয়রসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে বিদায়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশকে সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

সর্বশেষ নিউজ