১, ডিসেম্বর, ২০২০, মঙ্গলবার

শরীয়তপুরে হাত পা বাধা অবস্থায় কিশোরীর লাশ উদ্ধার

শরীয়তপর প্রতিনিধিঃ শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলায় হাত পা ও মুখ বাধা অবস্থায় খাল থেকে এক কিশোরী (১৫) লাশ উদ্ধার করেছে ডামুড্যা থানা পুলিশ। বৃস্পতিবার সকালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার জেলার ডামুড্যা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কুলকুড়ির এলাকার খালে লাশ পাওয়া যায়। নিহত কাজল আক্তার কুলকুড়ি গ্রামের আলা উদ্দিন ছৈয়ালের মেয়ে বলে ডামুড্যা থানার এস আই সজল কুমার পাল জানিয়েছে।

ডামুড্যা থানার এস আই সজল কুমার পাল ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, গত বুধবার রাতে খাবার শেষে পাশের হিন্দু বাড়ী ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ী টিভি দেখতে যায় কাজল। গভীর রাত হওয়ার পর বাড়ী না আসায় কাজলের বাবা আলা উদ্দিন ছৈয়াল তার মৃত্যুর মা বুলু বেগমকে জিঞ্জাস করে কাজল এখনো আসছে না কেন। এর পর কাজলের বাবা পার্শে¦র বাড়ী যান কাজলকে খুজতে। কিন্তু ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ী গিয়ে কাজলকে পাওয়া যায়নি। ঐ বাড়ির লোকজন বলেন কাজল টিভি দেখতে এসে আবার সাথে সাথে বাড়ীর কথা বলে চলে যায়। এরপর কাজলকে না পেয়ে বিভিন্ন আতœীয় স্বজনদের বাসায় খোঁজা খোজি ও ফোন দেন। এর পর তাকে না পেয়ে হতাশ হয়ে বাড়ী ফিরেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ির পাশে খালে লাশ ভাসতে দেখে তার মা ডামুড্যা থানায় খবর দেয়।

নিহতের বাবা আলা উদ্দিন ছৈয়াল জানান, আমি রাতের নামাজ পড়ে বাড়ী এসে কাজলেকে বাসায় না পেয়ে কাজলের মাকে জিজ্ঞাস করলে, তিনি বলে পাশের বাড়ী টিভি দেখতে গেছে। আমি খাওয়া দাওয়ার পর কাজলকে খুজতে যাই। পাশের হিন্দু বাড়ী ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ীতে গিয়ে শুনি কাজল আশার পর সাথে সাথে চলে গেছে। এরপর বিভিন্ন জায়গায় খোজাঁখুজি করেও কাজলকে আর পাওয়া যায়নি। আজ সকালে কাজলের মা বুলু বেগম হাত পা ও মুখ বাধা অবস্থায় খালের ভিতর লাশ ভাসতে দেখে।
এ ব্যাপারে ডামুড্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) এমারত হোসেন বলেন, হাত পা ও মুখ বাধা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে লাশের শরীরের কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। আমরা লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

ডামুড্যা থানার এস আই সজল কুমার পাল বলেন , আজ বৃহস্পতিবার সকালে আমরা খবর পেয়ে হাত-পা ও মুখ বাধা অবস্থায় ডামুড্যা পৌর এলাকার খালের মধ্যে থেকে কাজল আক্তারের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে প্রেরন করি। মেয়েটি টেলিভিশন দেখার জন্য পাশে^র হিন্দু বাড়ী ডাঃ নিদির কুমারের বাড়ী গিয়েছি বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

সর্বশেষ নিউজ