১, ডিসেম্বর, ২০২০, মঙ্গলবার

নবাবগঞ্জে আদিবাসী গৃহবধূকে ধর্ষণ ও প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের চেষ্টা গ্রেফতার ৩

নবাবগঞ্জ(দিনাজপুর) সয়ৈদ হারুনুর রশীদ। দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে আদিবাসী গৃহবধূকে জোর পূর্বক ধর্ষণ ও আদিবাসী প্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে থানায় পৃখক ২টি মামলা দায়ের হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ওই গৃহ বধূ ও ধর্ষণের চেষ্টার শিকার যবুতীর ভাই বাদী হয়েবুধবার ২৮ নভম্বের ওই মামলা ২টি দায়ের করেন। পুলিশ ওই মামলা গুলোতে অভিযুক্ত ৩ জনকে গ্রেফতার করেছেন।

বুধবার ২৮ নভম্বের তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা যায় গত মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের চকজুনিত(চালনীপাড়া) গ্রামে জোসেব হেমরনের ছেলে এজিকেল হেমরনের বাড়ীতে আত্মীয়তার সূত্রে গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার চাঙ্গুরা গ্রামের বিচার হেমরনের ছেলে গণেশ হেমরন(২৬) ও একই গ্রামের খুদগু মার্ডির ছেলে অনিল মার্ডি(২৫) বেড়াতে আসে। বিকালে তারা প্রতিবেশি এক বাড়ীতে বেড়াতে যায়। সেই বাড়ীর গৃহবধূকে(৩৫) বাড়ীতে একাকী পেয়ে গণেশ হেমরন জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় অনিল মার্ডি বাড়ীর আঙ্গিনায় দাড়িয়েছিল। গৃহবধূর চিৎকারে প্রতিবেশিরা আগাইয়া আসলে তারা পালাতে সক্ষম হয়। এ ঘটনায় ওই গৃহবধূ রাতেই থানায় ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও সহায়তার অভিযোগ আনয়ন করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ ওই মামলায় উপরোক্ত ২ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন।

বুধবার ২৮ নভম্বের তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। ভিতটিমকে পাঠানো হয়েছে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য। অপর দিকে গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার সময় উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের তর্পণঘাট গোলাবাড়ী(পাটনিপাড়া) গ্রামের মদন চন্দ্র দাসের প্রতিবন্ধী যুবতী মেয়ে(২২) কে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ১টি মামলা দায়ের হয়েছে। যুবতীর ভাই মুকুল চন্দ্র দাস বাদী হয়ে ওই মামলাটি দায়ের করেন। পুলিশ ওই মামলায় একই গ্রামের লাল মোহনের ছেলে কমলেশ হেমরম(৩০) কে গ্রেফতার করেছেন। বুধবার ২৮ নভম্বের তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

সর্বশেষ নিউজ