২৯, নভেম্বর, ২০২০, রোববার

একা থাকতে ভালো লাগে না তিশার, চান মনের মতো পাত্র!

অভিনেত্রী তাসনুভা তিশা ভালোবেসে ব্যবসায়ী পাত্র ফারজানুল হককে ২০১৪ সারের ২৮ ডিসেম্বর বিয়ে করেন। গোপনে বিয়ে করলেও পরে অভিনেত্রী নিজেই বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন।

চুটিয়ে প্রেম করার পর বিয়ে করেও দাম্পত্যজীবনে সুখেই ছিলেন এই দম্পতি। তাদের ঘর আলো করে পুত্রসন্তান আনুশের জন্ম হয়। কিন্তু হঠাৎই ছন্দপতন। বাড়ে দাম্পত্য তিক্ততা। এরই জেরে ২০১৮ সালের ২১ মে তাদের ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

বিবাহবিচ্ছেদের পর ব্যক্তিগত জীবনে অনেকটাই এলোমেলো হয়ে যান তিশা। অনেকদিন অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালেও ভর্তি ছিলেন। সব মিলিয়ে শোবিজ অঙ্গন থেকেও নিজেকে দূরে সরিয়ে নিয়েছিলেন।

কারও জন্য তো জীবন থেমে থাকে না, তিশাও থাকেনি জীবন। সব ঝেড়ে ফেলে আবারও অভিনয়ে ফিরেন তিনি। চলতি বছর তার অভিনীত ‘আগস্ট ১৪’ ওয়েবসিরিজটি মুক্তি পাওয়ার পর প্রশংসায় ভাসেন অভিনেত্রী।

কিন্তু সবকিছুর পরও তিশার এখন ফাঁকা ফাঁকা লাগে। একমাত্র সন্তান ও অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত থাকার পরও মনে হয় কীসের যেন একটা অভাব! তবে কি দ্বিতীয় বিয়ে করছেন তিনি? দ্বিতীয় বিয়ের বিষয়ে কী ভাবছেন এ অভিনেত্রী?

এ বিষয়ে তাসনুভা তিশা বলেন, ‘এখনই বিয়ে নিয়ে কিছু ভাবছি না। যদিও একা থাকতে আর ভালো লাগে না। একা থাকতে থাকতে ক্লান্ত হয়ে গেছি। আবার কখনও কখনও একা জীবনই ভালো লাগে।’

তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে মানুষের বিয়ের পোস্ট দেখে মনে হয় আমারও বিয়ে করা উচিত। কিন্তু আগে বিয়ে করে যে কষ্ট পেয়েছি, এখন আর সাহস পাই না। বিয়ে করার মতো বিশ্বস্ত তেমন কাউকে পাইনি এখনও।’

তিশা বলেন, ‘বিয়েটা দুজনের বোঝাপড়ার বিষয়। আবার বিয়ে করলে আগের ভুলটা করতে চাই না। এজন্য দ্বিতীয় বিয়ে করতে ভয় পাচ্ছি। প্রয়োজনে আরও ৫ বছর অপেক্ষা করতে চাই। কিন্তু মনের মতো একজন পাত্র চাই।’

ছোটপর্দায় ক্যারিয়ার শুরু হলেও পরবর্তীতে বিজ্ঞাপনচিত্র, মিউজিক ভিডিওতে কাজ করে প্রশংসা কুড়ান এই অভিনেত্রী।

সর্বশেষ নিউজ