১৪, জুন, ২০২৪, শুক্রবার
     

‘ইসরাইল নিজের ধ্বংসের পরিস্থিতি তৈরি করছে’

জেরুজালেম দিবস উপলক্ষে শুক্রবার অনুষ্ঠিত সমাবেশে ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ডসের প্রধান বলেছেন, ইসরাইলের কর্মকাণ্ড তাদের নিজেদের ধ্বংসের পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে। এ সমাবেশে ইরান তাদের নিজেদের দেশে তৈরি নতুন খেইবার বাস্টার ক্ষেপণাস্ত্র প্রদর্শন করে।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন জানায়, কুদস (জেরুজালেমের আরবি নাম) দিবস উপলক্ষে সারা দেশে রাষ্ট্রীয়ভাবে আয়োজিত এই সমাবেশে লাখ লাখ ইরানি যোগদান করেন।

এ সময় সারাদেশে লোকজন দলবেঁধে ‘আমেরিকা মুর্দাবাদ, ইসরাইল মুর্দাবাদ’ বলে স্লোগান তোলে এবং ইসরাইলি পতাকায় আগুন দেয়।

দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনি টেলিভিশনে প্রচারিত ভাষণে বলেন, ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ এবং হামলা থেকে বোঝা যায় যে ইসরাইলের সাথে আরব কর্তৃপক্ষের আপস ফিলিস্তিনিরা প্রত্যাখ্যান করেছে।

ফিলিস্তিনি ও অন্য আরবদের উদ্দেশে আরবি ভাষায় খামেনি বলেন, ‘সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ফিলিস্তিনে যা ঘটেছে তা ইহুদিবাদী শত্রুর (ইসরাইল) সাথে সমঝোতার সমস্ত পরিকল্পনা অকার্যকর করে দিয়েছে। কারণ, ফিলিস্তিনের মালিক তথা ফিলিস্তিনিদের মতামতের বিপরীতে বা অনুপস্থিতিতে ফিলিস্তিনের জন্য কোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা যাবে না’।

যেসব ফিলিস্তিনিরা পূর্ব জেরুজালেমকে ১৯৬৭ সালের যুদ্ধে ইসরাইল কর্তৃক দখলকৃত অঞ্চল নিয়ে গঠিত ভবিষ্যত রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে চায় তাদের সমর্থনে ইরানে জেরুজালেম দিবস পালিত হয়। প্রতি বছর মুসলমানদের রোজার মাসের শেষ শুক্রবার এই দিবস পালন করা হয়।

রেভল্যুশনারি গার্ডসের অধিনায়ক তেহরানে বিক্ষোভকারীদের সম্মুখে ইসরাইলকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘তোমাদের এই পাপাচার বন্ধ কর। তোমরা ভালো করেই জান যে আমরা বসে থাকব না, এসবের জবাব দেব’।
সূত্র : ভয়েস অফ আমেরিকা

               

সর্বশেষ নিউজ