২২, জুন, ২০২৪, শনিবার
     

‘আজকে ইউক্রেনে, আগামীকাল পূর্ব এশিয়াতেও হতে পারে’

জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা শুক্রবার একটি নিরাপত্তা সম্মেলনে সতর্ক করে বলেছেন, আজকে ইউক্রেনে যে পরিস্থিতি ঘটতে তা আগামীকাল পূর্ব এশিয়াতেও হতে পারে। চীন গণতান্ত্রিক স্বশাসিত তাইওয়ানে আক্রমণ করতে পারে বলে উদ্বেগ বাড়ছে। সেই বিষয়টিকে ইঙ্গিত করেই তিনি এ কথা বলেন। খবর এএফপির।

মার্কিন কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন, তাইওয়ানের ক্ষেত্রে তাদের নিজস্ব পরিকল্পনার মূল্যায়ন করতে কীভাবে ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণ অগ্রসর হচ্ছে তা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে চীন ।

দ্বীপটি নিয়ে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। তাইওয়ানকে বেইজিং নিজেদের ভূখণ্ডের অংশ মনে করে এবং প্রয়োজনে জোর করে একদিন দ্বীপটিতে দখল করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে চীন।

কিশিদা সিঙ্গাপুরে একটি নিরাপত্তা সম্মেলনে বলেন, জাপান একটি শান্তিপ্রিয় জাতি হলেও পরিবর্তিত আঞ্চলিক এবং বৈশ্বিক নিরাপত্তার চিত্র টোকিওকে তার নিজস্ব প্রতিরক্ষা অবস্থান পুনর্বিবেচনা করতে বাধ্য করেছে।

শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়া প্রতিরক্ষা মন্ত্রী, জৈষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তা এবং বিশ্লেষকদের উদ্দেশ্যে মূল বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার আগ্রাসনের আলোকে, সারা বিশ্বে নিরাপত্তার বিষয়ে দেশগুলোর ধারণা ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হয়েছে।

জার্মানি প্রতিরক্ষা বাজেট বাড়িয়ে মোট দেশজ উৎপাদনের দুই শতাংশে উন্নীত করেছে। ফিনল্যান্ড ও সুইডেনকে তাদের ঐতিহ্যগত নিরপেক্ষতা ত্যাগ করে ন্যাটো সদস্যপদ লাভের জন্য চাপ দিচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে পশ্চিমা নেতৃত্বাধীন নিষেধাজ্ঞায় যোগ দেওয়া কিশিদা বলেন, আমি নিজেও জোরালো ভাবে অনুভব করছি যে ইউক্রেন আজকে আগামীকাল পূর্ব এশিয়া হতে পারে।

কিশিদা বলেন, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আঞ্চলিক শান্তি ও নিরাপত্তায় অবদান রাখার পাশাপাশি ‘জাপানের জনগণের জীবন ও সম্পদ রক্ষা করার’ দায়িত্ব তার রয়েছে।

               

সর্বশেষ নিউজ