২৩, এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার
     

ইউক্রেনকে সহযোগিতা অব্যাহত রাখা নিয়ে ‘উদ্বিগ্ন’ বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন স্বীকার করেছেন, ওয়াশিংটনে রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলার কারণে ইউক্রেনকে দেওয়া যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা অব্যাহত রাখা হুমকির মধ্যে পড়তে পারে। বুধবার এই আশঙ্কা মাথায় রেখে তিনি রিপাবলিকানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কিয়েভের জন্য জরুরি সহযোগিতা চালিয়ে যেতে দলের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব মিটিয়ে ফেলতে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ খবর জানিয়েছে।

বাইডেন বলেছেন, তিনি শিগগিরই একটি গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ দেবেন। এতে তিনি রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনের লড়াইয়ে সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কথা বলবেন। ওয়াশিংটনে রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলায় এই সহযোগিতা অব্যাহত রাখা নিয়ে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে এবং ইউক্রেন ও যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদের মধ্যে উদ্বেগ ছড়িয়েছে।

স্পিকার কেভিন ম্যাকার্থিকে অপসারণের ফলে ইউক্রেনের যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা তহবিল বাধাগ্রস্ত হবে কিনা জানতে চাইলে সাংবাদিকদের বাইডেন বলেছেন, এটি আমাকেও উদ্বিগ্ন করে। কিন্তু আমি জানি প্রতিনিধি পরিষদ ও সিনেটের উভয় দলের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্য ইউক্রেনকে সহযোগিতা দেওয়াকে সমর্থন করেন।

বাইডেন ইঙ্গিত দিয়েছেন, কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়াও ইউক্রেনকে সহযোগিতা দেওয়া জারি রাখার আরেকটি পন্থা হয়ত আছে। কিন্তু তিনি এই বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি।

হোয়াইট হাউজ জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার বাইডেনকে তার জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা টিম ইউক্রেন নিয়ে ব্রিফিং করবে। এতে প্রথমবারের মতো হাজির হবে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা জেনারেল চার্লস ব্রাউন।

দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, বাইডেনের এই মন্তব্য তার অবস্থান পরিবর্তনের ইঙ্গিত। এর আগে মঙ্গলবার মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে ফোনালাপে তিনি আত্মবিশ্বাসী ছিলেন সহযোগিতা বরাদ্দ অনুমোদন পাবে।

কিন্তু এখন তিনি রাশিয়ার সর্বাত্মক আক্রমণের বিরুদ্ধে ইউক্রেনকে সহযোগিতার গুরুত্ব তিনি তুলে ধরবেন।

তিনি বলেন, আমি খুব শিগগিরই একটি গুরুত্বপূর্ণ ভাষণের ঘোষণা দেব। এতে আমি তুলে ধরব কেন ইউক্রেনের প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্রদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করা কেন জরুরি।

তবে কখন এই ভাষণ দেবেন তা জানাতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

               

সর্বশেষ নিউজ