১৪, জুন, ২০২৪, শুক্রবার
     

সিঙ্গাপুরে গাড়ির মালিকানার সনদ পেতেই খরচ লক্ষাধিক ডলার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

সিঙ্গাপুরে গাড়ির মালিকানা সনদ নিতে গ্রাহককে গুনতে হবে এক লাখ ছয় হাজার ৬১৯ ডলার। যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ। প্রতি দুই সপ্তাহে সরকার নির্ধারিত সংখ্যা নিলামে বিক্রি হয় বলে সনদ পেতে এত বেশি অর্থ গুণতে হয়। এর ফলে বিশ্বের মধ্যে সিঙ্গাপুরে গাড়ি কেনা সবচেয়ে ব্যয়বহুল। সিঙ্গাপুরে একটি টয়োটা ক্যামরি হাইব্রিড গাড়ির দাম দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এমন ছয়টি গাড়ি কেনা যাবে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে। সিঙ্গাপুর শহরের যানজট নিরসেনের জন্য ১৯৯০ সালে ১০ বছর মেয়াদি সার্টিফিকেট অব এনটাইটেলমেন্ট (সিওই) ব্যবস্থা চালু করেছিল। সিঙ্গাপুরে যদি কেউ গাড়ি কিনতে চায় তাহলে অবশ্যই তার এই সনদ থাকতে হবে। এই সনদের সঙ্গে ট্যাক্স ও আমদানি শুল্কের জন্য গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে সিঙ্গাপুর বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল দেশ। মহামারির পর গাড়ির চাহিদা বাড়ার কারণে গত কয়েক মাস ধরে এই সনদের দাম বেড়েই চলেছে। বুধবার তা রেকর্ড সর্বোচ্চ হয়েছে। সনদ, নিবন্ধন ফি ও ট্যাক্স মিলিয়ে সিঙ্গাপুরে একটি টয়োটা ক্যামরি হাইব্রিড গাড়ির দাম ১ লাখ ৮৩ হাজার ডলার।

বিপরীতে যুক্তরাষ্ট্রে এমন এটি গাড়ির দাম ২৮ হাজার ৮৫৫ ডলার। ছোট গাড়ি, মোটরসাইকেল ও বাণিজ্যিক গাড়ির জন্য পৃথক সিওই দেওয়া হয়। ২০২০ সালের তুলনায় প্রাইভেট কারের সনদের মূল্য তিনগুণ বেড়েছে। টয়োটা বোর্নিও মোটরসের অ্যালিস চ্যাং বিবিসিকে বলেছেন, নতুন গাড়ির চাহিদা বাড়ার কারণেই সিওই খরচ বেড়েছে। বিলাসবহুল গাড়ি এলেই আমাদের দোকানে ক্রেতার ভিড় বেড়ে যায়। সিঙ্গাপুর অপেক্ষাকৃত ছোট দেশ। কিন্তু দেশটিতে বিপুল সংখ্যক ধনকুবের বসবাস করেন। সাধারণ মানুষের গড় বেতন ৭০ হাজার ডলার। এই আয়ে তাদের গাড়ি কেনা মুশকিল।

               

সর্বশেষ নিউজ