২৯, মে, ২০২৪, বুধবার
     

নতুন কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নামছে বিএনপি

আগামী ৯ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার (৫ অক্টোবর) চট্টগ্রামের কাজীর দেউরী নেভাল এভিনিউস্থ তিন রাস্তার মোড়ে কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখী রোডমার্চ পরবর্তী সমাবেশে এ ঘোষণা করেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, আগামী ৯ অক্টোবর থেকে আমরা নতুন কমর্সূচি চট্টগ্রাম থেকে ঘোষণা করছি। এর মধ্যে আওয়ামী লীগের শুভবুদ্ধির উদয় হোক। ভালোয় ভালোয় ক্ষমতা হস্তান্তর করুন।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামে জনবিস্ফোরণ ঘটেছে। সব মানুষ আজ রাস্তায়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় টিকে আছে বন্দুকের জোরে। তারা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করছে। সব মানুষের মুখে এখন একটাই স্লোগান, শেখ হাসিনা তুই কবে যাবি। সেই বার্তাই আমরা নিয়ে এসেছি। অনেক কথা হয়েছে। রোডমার্চ, সমাবেশ হয়েছে। এটাই শেষ রোডমার্চ। এরপর আর রোডমার্চ হবে না। সব হবে ঢাকায়।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, শেখ হাসিনা, আপনি অনেক মানুষ খুন করেছেন। আমাদের অনেক ভাইকে হত্যা করেছেন, স্ত্রীকে স্বামীহারা এবং সন্তানকে পিতৃহারা করেছেন। আমরা আর এসব করতে দেব না। পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বলব, অন্যায় হুকুমের মধ্যে কোনো গুলি করবেন না। কোনো নির্যাতন এবং মিথ্যা মামলা করবেন না।

তিনি বলেন, মানুষ আজ জেগে উঠেছে। বাংলাদেশের জনগণ আজ চায় শান্তিপূর্ণভাবে আওয়ামী লীগ ক্ষমতা হস্তান্তর করুক। আপনার (শেখ হাসিনা) অধীনে আর নির্বাচন আমরা চাই না। সংসদ বিলুপ্ত করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন এখন সময়ের দাবি। মানুষ তার ভোট দিয়ে পার্লামেন্ট নির্বাচন করবে।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। এ হত্যার রাজনীতি আমরা দেখতে চাই না। আমরা শুধু এ মাস দেখব। সামনে দুর্গাপূজা, কঠোর আন্দোলনে আমরা যেতে চাই না। আমরা শান্তিতে বিশ্বাসী। অহিংস আন্দোলনে বিশ্বাসী। যদি কোনো অশান্তি, কোনো হয়রানি বা মিথ্যা মামলা দিয়ে নির্যাতন করা হয় তা বাংলাদেশের জনগণ মেনে নেবে না। আঘাতের জবাবে প্রত্যাঘাত করা হবে। প্রতিরোধ করা হবে। তা হবে এ মুহূর্তের বিজয়ের সূচনা। তাদের পতন অবশ্যই হবে।

নতুন কর্মসূচি হলো-

১. খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে ৯ অক্টোবর সারাদেশের মহানগর এবং জেলায় সমাবেশ ও মিছিল।

২. ১২ অক্টোবর ‘ফ্যাসিস্ট’ সরকারের পদত্যাগের দাবিতে ঢাকায় ছাত্র কনভেনশন।

৩. ১৪ অক্টোবর সারাদেশে অনশন কর্মসূচি।

৪. ১৬ অক্টোবর ঢাকায় যুব সমাবেশ।

৫. ১৮ অক্টোবর ঢাকায় সমাবেশ। ওই সমাবেশ থেকে আবারও কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

               

সর্বশেষ নিউজ