২৯, মে, ২০২৪, বুধবার
     

কী ঘটতে যাচ্ছে হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধে?

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

চলমান ফিলিস্তিন-ইসরায়েল সংঘাত নিয়ে আলোচনা করেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। ফিলিস্তিনের বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ বন্ধের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে গতকাল বুধবার টেলিফোনে কথা বলেন তারা।

চীনের মধ্যস্থতায় গত মার্চ মাসে তেহরান-রিয়াদের মধ্যে ঐতিহাসিক চুক্তির পর এই প্রথম একে অপরের সঙ্গে কথা বললেন এই দুই নেতা।

এ সময় সৌদি ক্রাউন প্রিন্স জানান ফিলিস্তিন-ইসরায়েল উত্তেজনা নিরসনে সকল আন্তর্জাতিক এবং আঞ্চলিক পক্ষের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য সমস্ত সম্ভাব্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

ফোনালপে বেসামরিক নাগরিকদের টার্গেট করা এবং নিরপরাধ নাগরিকদের হত্যার বিরুদ্ধে সৌদি আরবের অবস্থানের পুনর্ব্যক্ত করেন সালমান, এই ব্যাপারে আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের নীতিগুলিকে বিবেচনায় নেওয়ার প্রয়োজনীয়তার উপর জোরদেন তিনি, গাজা উপত্যকার মানবিক পরিস্থিতির অবনতি সম্পর্কে গভীর উদ্বেগের প্রকাশ করেন সালমান। এ সময় ফিলিস্তিনি জনগণের ন্যায্য অধিকার আদায়ে শান্তিপূর্ণ প্রচেষ্টাকে সমর্থন করার প্রতি সৌদি আরবের দৃঢ় অবস্থানের উপর জোরদেন ক্রাউন প্রিন্স।

এদিকে ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসির দপ্তরের ডেপুটি চিফ অব স্টাফ মোহাম্মাদ জামশিদি জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট রাইসি এবং বিন সালমান দুজনই ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধপরাধের অবসান ঘটানোর বিষয়ে একমত হয়েছেন। এছাড়া, চলমান সংকট নিরসনের জন্য মুসলিম বিশ্বে ঐক্য প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান তারা।

               

সর্বশেষ নিউজ