২৩, এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার
     

মুগদায় যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

ক্রাইমভিশন ডেস্ক:

রাজধানীর মুগদায় রুবেল মিয়া (২৮) নামে এক যুবক ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (১৫ অক্টোবর) দিবাগত রাতে নিজ ঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) এনামুল করিম এ তথ্য জানান।

রুবেল নরসিংদীর বেলাবো উপজেলা লতিফপুর গ্রামের মোক্তার মিয়ার ছেলে। উত্তর মুগদায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার পরিবারের অন্য সদস্যরা থাকতো গ্রামে। দুই মেয়ে সন্তানের জনক ছিলেন তিনি।

মৃতের ছোট ভাই সুমন মিয়া জানান, তার ভাই রুবেল পদ্মা টেলিকম নামে একটি বিকাশের দোকানে চাকরি করতেন। সুমনও ওই প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। রুবেল রাতে খাবার খেতে বাসায় যায়। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে সুমন বাসায় গিয়ে তার রুমের দরজা বন্ধ পায়। তার কোনও সারাশব্দ না পেয়ে বাড়ির মালিকের সহযোগিতায় দরজা ভেঙে রুবেলকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

তিনি জানান, ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক তার ভাইয়ের কাছে এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা পেতেন। তাকে ৫০ হাজার টাকা দিয়েও দিয়েছেন।

সুমনের অভিযোগ, ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক সাজিজুল কাজল তার ভাইয়ের সঙ্গে টাকা সংক্রান্ত বিষয়ে খারাপ ব্যবহার করতেন। সে কারণে তার ভাই আত্মহত্যার করেছেন।

এসআই বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, অনলাইনে জুয়া খেলে ঋণগ্রস্ত হয়ে পারিবারিক কলহের কারণে রুবেল নিজ ঘরে ফ্যানের সঙ্গে রশি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস নেয়। পরে দরজা ভেঙে তার ছোট ভাই এবং বাড়ির মালিক তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে।’

               

সর্বশেষ নিউজ