৬, ডিসেম্বর, ২০২৩, বুধবার

ইসরায়েল প্রতিশোধ নেবে, আমরা শুধু দেখবো’ মন্তব্য করা শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

‘হামাস একটি সন্ত্রাসী সংগঠন’ উল্লেখ করে ইসরায়েলের পক্ষে ফেসবুকে মন্তব্য করায় চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে এক কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন শিক্ষার্থীরা। সোমবার (১৬ অক্টোবর) সকালে কলেজের শিক্ষার্থী ও স্থানীয়রা এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন।

এর আগে উপজেলার কালির বাজার কলেজের ওই শিক্ষক তার নিজ নামের ফেসবুক আইডি থেকে বেসরকারি একটি টেলিভিশনের ফেসবুক পেইজে পোস্ট করা নিউজের নিচে মন্তব্য করেন।

মন্তব্যে লেখেন, ‘হামাস একটা সন্ত্রাসী সংগঠন। ইসরায়েল কঠোর হস্তে সন্ত্রাস দমন করবে। সন্ত্রাসীদের সঙ্গে কোনও আপস নেই। হামাস এক দিনে ৭০০ লোক হত্যা করেছে। এবার ইসরায়েল প্রতিশোধ নেবে। আমরা শুধু ভিডিও দেখবো। উভয়পক্ষ মানুষ মারার খেলায় মেতে উঠেছে।’

এই শিক্ষক আরেকটি মন্তব্যে লেখেন, ‘মৌমাছির চাকে ঢিল মেরে আল্লাহকে ডাকলে কী লাভ হবে? ইসরায়েল চরম প্রতিশোধ নেবে। এটা কোনও দিনও থামবে বলে মনে হয় না।’

তার এমন মন্তব্য দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিন্দার ঝড় ওঠে। এরপর থেকে কলেজ শিক্ষার্থী ও আশপাশের এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়। এদিকে শিক্ষার্থী ও আশপাশের এলাকার মানুষের প্রতিবাদে ওই শিক্ষক গা ঢাকা দেন।

খবর পেয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ফরিদগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের কর্মকর্তারা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ওই এলাকায় যান ফরিদগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মৌলি মন্ডল, চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) রাশেদুল হক চৌধুরী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফরিদগঞ্জ-হাজীগঞ্জ) সার্কেল পংকজ কুমার দে, ফরিদগঞ্জ থানার ওসি সাইদুল ইসলাম।

এলাকা পরিদর্শন শেষে কলেজ শিক্ষার্থীদের বুঝিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে নিয়ে আসেন। পরে কলেজ মিলনায়তনে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস প্রদান পূর্বক শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি শান্তি সমাবেশ করেন।

কালির বাজার কলেজের অধ্যক্ষ মো. হাফিজ আল মামুন বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষক আমার কলেজে একটি বিভাগের দায়িত্বে রয়েছেন। তার এমন আচরণ সত্যি দুঃখজনক। আমি কলেজের গভর্নিং বডির সঙ্গে যোগাযোগ করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবো। বর্তমানে অভিযুক্ত শিক্ষক অনুপস্থিত রয়েছেন।

সর্বশেষ নিউজ