১৪, জুন, ২০২৪, শুক্রবার
     

ভোট না দিলে কবরস্থানও বন্ধের হুমকি দেওয়া হচ্ছে

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুর কবির রিজভী বলেছেন, পাতানো নির্বাচন ঘিরে দেশে অকল্পনীয়, অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয়েছে। অস্ত্র নিয়ে প্রকাশ্যে মিছিল করছে। নৌকা ও ডামি প্রার্থী এবং আইনশৃংখলা বাহিনী-রাষ্ট্রযন্ত্র সব আওয়ামীময় হয়ে গেছে।

শুক্রবার (২৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, বিভিন্ন কৌশলে ভোটারদের কেন্দ্রে নেওয়ার জন্য মরিয়া তারা। প্রতিটি জনপদের মানুষ আমি-ডামী প্রার্থী আর তাদের সমর্থক ও প্রশাসনের দলবাজ কর্মকর্তাদের প্রকাশ্য হুমকিতে ভীত। ভোট কেন্দ্রে না গেলে হত্যা, গ্রাম ছাড়া করার ভয় দেখানো হচ্ছে। কোনো কোনো প্রার্থী হুমকি দিচ্ছেন, ভোট কেন্দ্রে না গেলে নাগরিক সুবিধা বাতিল করা হবে। ভোট না দিলে মসজিদ-কবরস্থান বন্ধ করার হুমকিও দেওয়া হচ্ছে।

দেশ এখন দুই ভাগে বিভক্ত বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, একদিকে সাধারণ জনগণ অন্যদিকে ‘আমরা আর মামুরা’। এখন মাফিয়াচক্র নেমে পড়েছে ভোটার হান্টিং মিশনে। কিন্তু ভোট কেন্দ্রে ভোটার আসবে এমন নিশ্চয়তা পাচ্ছে না।

তিনি দাবি করেন, গত ২৬ ডিসেম্বর চট্টগ্রামে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল স্বীকার করে বলেছেন, ‘২০১৮ সালে রাতে ভোট হয়েছিল। ৯৯ নয়, ১০০ শতাংশ নিশ্চিত করতে পারি এবার আর আগের রাতে ভোট হবে না। এ জন্য অনেক ক্ষেত্রেই ব্যালট পেপার সকালে যাবে।’

গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে বিএনপি ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের ২৯৫ জনের অধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

বিডি২৪লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

               

সর্বশেষ নিউজ