১৬, জুলাই, ২০২৪, মঙ্গলবার
     

শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের গাছ কর্তণের ঘটনায় দুই দলিল লেখককে বরখাস্ত

মোহন মোড়ল, শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:
শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের গাছ কাটার ঘটনায় দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব শিকদার ও সাবেক সভাপতি পরিমল চক্রবর্তীকে অনিদিষ্টকালের জন্য বরখাস্ত করা হয়েছে। সেই সাথে শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রারকে থানায় অভিযোগ করার নির্দেশ দিয়েছেন মুন্সীগঞ্জের জেলা রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) খন্দকার জামিলুর রহমান। এর আগে গত ৫ ফেব্রয়ারি গাছ কর্তণের অভিযোগ বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়। শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রার আবুল বশারকে না জানিয়ে গত শুক্র ও শনিবার ছুটির দিনে দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব শিকদার সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের একটি পুরনো কড়ই গাছ কেটে ফেলেন। পাশের একটি গাছের ডাল পালাও কেটে ফেলেন। রবিবার সকালে সাব-রেজিস্টার আবুল বশার কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে গাছ কাটা দেখে অবাক হন। এ সময় আব্দুর রব গাছ কাটার বিষয়টি স্বীকার করে দম্ভ প্রকাশ করেন। খবর প্রকাশের পর দিন মুন্সীগঞ্জ জেলা রেজিস্ট্রার খন্দকার জামিলুর রহমান শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে আসেন।

গাছ কাটার সত্যতা পেয়ে দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রব শিকদার ও সাবেক সভাপতি পরিমল চক্রবর্তীকে অনিদিষ্টকালের জন্য বরখাস্ত করেন। সেই সাথে শ্রীনগর সাব-রেজিস্ট্রার আবুল বশারকে থানায় অভিযোগ করার জন্য বলেন। আব্দুর রব শিকদার দাবী করেন গাছটি সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের মসজিদের জন্য কাটা হয়েছে। তবে তা সাব রেজিস্ট্রারকে নাজানিয়ে বা সংশ্লিষ্ট প্রক্রিয়া না মেনে কেন? এমন প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে পারেননি তিনি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন জানিয়েছেন, আব্দুর রব সিকদার ব্যক্তিস্বার্থে গাছ কাটেন। বাড়িতে বিল্ডিং নির্মানের কাজে ব্যবহারের জন্য। শ্রীনগর সাব রেজিস্ট্রার আবুল বশার বলেন, ইতি মধ্যে আব্দুর রব শিকদার ও পরিমল চক্রবর্তী বরখাস্তের আদেশ পেয়েছেন। থানায় অভিযোগের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

               

সর্বশেষ নিউজ