২৩, এপ্রিল, ২০২৪, মঙ্গলবার
     

‘মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে, গ্রামের মানুষ সকালে উঠেই চা খায়: বাণিজ্যমন্ত্রী

‘মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে। যে কারণে গ্রামের মানুষ এখন সকালে উঠেই দোকানে গিয়ে চা খায়। আগে যেখানে এক কাপ খেত, এখন দুই কাপ খায়। ফলে দেশে দৈনিক ১০ কোটি কাপ চা খাওয়া হয়।’

শনিবার রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে ‘চা দিবস’ উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, চায়ের উৎপাদন বাড়ানো নিয়ে আমরা চিন্তা করছি। এখন প্রতি বছর ৪ থেকে ৫ শতাংশ চায়ের উৎপাদন বাড়ছে। তবে মানুষের চাহিদার তুলনায় উৎপাদন কম, এজন্য রপ্তানি করতে পারছি না। তবে চা পাতার কারণে আজ উত্তরাঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়েছে। টিসিবির লাইনে এখন উত্তর এলাকায় মানুষ পাওয়া যাচ্ছে না। চা বাগানে কাজ করার কারণে তাদের আয় অনেক বেড়ে গেছে।

ক্ষুদ্র চা বাগানগুলোকে সাপোর্ট দিতে হবে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এক লাখ ৪০ হাজারের বেশি শ্রমিক আছে। তাদের সন্তানদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দেশের বাইরে পাঠানোর বিষয়টি দেখতে হবে।

ওই অনুষ্ঠানে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমেদ বলেন, অনাবাদি ক্ষুদ্রাকার জমিতে চা উৎপাদন এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ। চা শ্রমিকদের জন্য প্রধানমন্ত্রী যা দিয়েছেন এর কারণে চা শিল্প অনেক এগিয়েছে। নারী চা শ্রমিকের সরকারি সহযোগিতায় নারীর ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখছে।

এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, জিডিপির আকার এখন ৪১৬ বিলিয়ন ডলারের। সারা বিশ্বে ফরেন কারেন্সি সংকট রয়েছে। করেনাকালে সংকট ছিল, সে অবস্থার মধ্যেও আমরা ভালো করেছি। আমরা মধ্যম ও উন্নত মধ্যম আয়ের রাষ্ট্রের দিকে যাচ্ছি। ওই অনুষ্ঠানে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব তপন কান্তি ঘোষের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য দেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

এ ছাড়াও বক্তব্য দেন চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল আশরাফুল ইসলাম, বাংলাদেশ টি অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান এম শাহ আলম, টি ট্রেডার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান ওমর হান্নান।

               

সর্বশেষ নিউজ